নববধূকে ঝলসে দিল স্বামী

বগুড়ায় পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়ার জেরে নববধূকে দাহ্য পদার্থ দিয়ে ঝলসে দিয়েছে পাষণ্ড স্বামী। রোববার জেলার নন্দীগ্রাম পৌরসভার ফোকপাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রিমা খাতুন (১৮) নামের ওই গৃহবধূ এখন হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন। এ ঘটনায় মামলার পর স্বামী রাকিব হাসানকে মঙ্গলবার গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রাকিব পেশায় কৃষক। সে ওই এলাকার আক্কাস আলীর ছেলে। রিমা একই উপজেলার ঢাকইন গ্রামের রেজাউল করিমের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রাকিবের সঙ্গে ২৮ দিন আগে বিয়ে হয় রিমার। রোববার সকালে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়। স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া করে রাকিব বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। দুপুরে রিমা ঘরের ভেতর বসে জানালা খুলে চুল আঁচড়ানোর সময় রাকিব বাইরে থেকে রিমাকে লক্ষ্য করে দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপ করে। এ সময় রিমার চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে রাকিব পালিয়ে যায়। পরে প্রতিবেশীরা রিমাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে ভর্তি করে। তার পিঠের পুরো অংশ পুড়ে গেছে। অবস্থার অবনতি হলে পুলিশের সহায়তায় সোমবার তাকে বগুড়া শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় রিমার বাবা রেজাউল করিম বাদী হয়ে মঙ্গলবার সকালে নন্দীগ্রাম থানায় রাকিব হাসানকে আসামি করে মামলা করেন। পুলিশ রাকিবকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে।

নন্দীগ্রাম থানার ওসি নাসির উদ্দিন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রিমাকে তার স্বামী কী ধরনের দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপ করেছে তা এখনও জানা যায়নি।

অনুসন্ধান

পুরাতন খবর

এই বিষয়ের আরো খবর

© All rights reserved © 2017 ThemesBazar.Com

Desing & Developed BY লিমন কবির