১০ বছরে অর্থমন্ত্রীর সম্পদ বেড়েছে এক কোটি টাকা

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ব্যক্তিগত বার্ষিক আয়কর রিটার্ন জমা দিয়েছেন। সোমবার সচিবালয়ে নিজ দফতরে অনলাইনে রিটার্ন দাখিল করেন তিনি। চলতি করবর্ষে তিনি দুই লাখ ২২ হাজার ৯২২ টাকা কর দেন।

এ সময় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য কালিপদ হালদারসহ অর্থ মন্ত্রণালয় ও এনবিআরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। অর্থমন্ত্রী জানান, গত দশ বছরে তার সম্পদ বেড়েছে এক কোটি ১৩ লাখ ৩২ হাজর ৪৬১ টাকা। ২০০৮ সালে তার সম্পদ ছিল এক কোটি ১৪ লাখ ৮৩ হাজার ৩৬ টাকা। ২০১৮ সালে তা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ২৮ লাখ ১৫ হাজার ৪৯৭ টাকা।

তিনি সাংবাদিকদের জানান, ২০১৮-১৯ অর্থবছরের পরিশোধ করা করের মধ্যে বেতন থেকে দেওয়া হয়েছে ১ লাখ ৫৪ হাজার ৪৪৩ টাকা। পে অর্ডারের মাধ্যমে বাকি ৬৮ হাজার ৪৭৮ টাকা দিয়েছেন। গতবছর তার মোট আয় ৩৪ লাখ ২৮ হাজার ৩৪১ টাকা ছিল বলেও জানান মুহিত।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার যখন ক্ষমতায় আসে তখন করদাতার সংখ্যা ছিল ৭ লাখ। ২০১৫ সালে দাঁড়ায় ১৫ লাখে। গত তিন বছরে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৮ লাখে। সে হিসাবে করদাতার সংখ্যা তিন বছরে বেড়েছে প্রায় তিন গুণ। এটা শিগগিরই এক কোটি ছাড়াবে আশা প্রকাশ করে মুহিত বলেন, আগে মানুষ কর দিতে ভয় পেতো। এখন আর সে অবস্থানে নেই। তরুণরা এখন আনন্দের সঙ্গে কর দেন। এটা সম্ভব হয়েছে আয়কর মেলার জন্য।

নির্বাচনের আগে খেলাপি ঋণের পুনঃতফশিলের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে এটা হলে সরকারের আয় বাড়ে। বিষয়টি ব্যাংক ও গ্রাহকের মধ্যকার ব্যাপার। এ ব্যাপারে আমার কাছে কোনো অভিযোগ আসেনি।

অনুসন্ধান

পুরাতন খবর

এই বিষয়ের আরো খবর

© All rights reserved © 2017 ThemesBazar.Com

Desing & Developed BY লিমন কবির